বৃহস্পতিবার, ২১ অক্টোবর ২০২১, ১১:৫১ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
রংপুর-কাকিনা সড়ক যোগাযোগ বন্ধ  গঙ্গাচড়ায় অকাল বন্যায় ১৫ হাজার পরিবার পানিবন্দি জাতীয় সংস্থা রংপুরের শান্তি-সম্প্রীতির র‌্যালী ও মানববন্ধন বন্যার পানির তোরে গঙ্গাচড়া শেখ হাসিনা সেতুর সংযোগ সড়কে ভাঙ্গন, যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন খানসামায় বিভিন্ন মসজিদের ইমামগণের সাথে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত রংপুরের পীরগঞ্জে ধর্ম অবমাননার অভিযোগে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের বাড়িতে হামলা পীরগঞ্জের ১০ ইউপিতে নির্বাচন চেয়ারম্যান পদে ৫১ জন সহ ৪৫৭ জনের মনোনয়ন জমা পীরগঞ্জের ১০ ইউপিতে নির্বাচন চেয়ারম্যার পদে ৫১ জন সহ ৪৫৭ জনের মনোনয়ন জমা পীরগঞ্জে ব্রিজ সহ খাল বিক্রির অভিযোগ সভাপতি আজাদ ও সাধারণ সম্পাদক দুলু গঙ্গাচড়া ইউনিয়ন জাপার কার্যকরি কমিটি গঠন এআরসি হাসপাতাল রংপুরে চিকিৎসা সেবায় এগিয়ে থাকবে রসিক মেয়র
পঞ্চগড়ে সন্তানকে নিয়ে ট্রেনের নিচে ঝাঁপ দিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা গৃহবধূর

পঞ্চগড়ে সন্তানকে নিয়ে ট্রেনের নিচে ঝাঁপ দিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা গৃহবধূর

 

মোঃ সইনুল রহমান আকাশ, পঞ্চগড় জেলা প্রতিনিধি :

পঞ্চগড়ে সন্তানকে সাথে নিয়ে ট্রেনের নিচে ঝাঁপ দিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছেন এক গৃহবধূ।

শনিবার (৯ অক্টোবর) পঞ্চগড় বীর মুক্তিযোদ্ধা সিরাজুল ইসলাম রেলওয়ে স্টেশনের পাশে কমলাপুর এলাকায় ঘটনাটি ঘটে। পরে আহত অবস্থায় শিশুসহ তাকে উদ্ধার করে পঞ্চগড় সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ২৬ বছর বয়সী ওই গৃহবধূ দেবীগঞ্জ উপজেলার সোনাহার এলাকার বাসিন্দা।

স্থানীয়রা জানান, তিন মাস বয়সী মেয়েকে কোলে নিয়ে স্টেশনের পাশে বসে মোবাইল ফোনে কথা বলছিলেন ওই গৃহবধূ।

দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে পঞ্চগড় এক্সপ্রেস ট্রেনটি ঢাকার উদ্দেশ্যে ছেড়ে যায়। এর ঠিক তিন মিনিটের মাথায় সন্তানকে নিয়ে ট্রেনের সামনে ঝাঁপ দেন ওই গৃহবধূ।

শুরুতে গতি কম থাকায় ট্রেনটি থামাতে সক্ষম হন চালক। তবু এর ধাক্কায় গুরুতর আহত হন ওই গৃহবধূ। কোলে থাকা শিশুটি লাইনের ওপর ছিটকে পড়ে।

আহত শিশুসহ গৃহবধূকে প্রথমে পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতাল এবং পরে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।

স্থানীয়দের ধারণা, কোলের শিশুকে নিয়ে তিনি মোবাইল ফোনে কারও সঙ্গে ঝগড়া করছিলেন। তবে কার সঙ্গে এবং কী নিয়ে ঝগড়া হয়েছে তা জানা যায়নি।

স্থানীয় শিক্ষক মাসুদ পারভেজ বলেন, হাসপাতালে ওই গৃহবধূর কাছেই তার নাম জানা গেছে। মোবাইল ফোনের সর্বশেষ ডায়ালকৃত নম্বরটি তার স্বামীর নম্বর। সম্ভবত তিনি স্বামীর সঙ্গে কথা বলছিলেন। বীর মুক্তিযোদ্ধা সিরাজুল ইসলাম স্টেশনের সহকারী স্টেশনমাস্টার মো. নাজমুল হোসেন বলেন, এক নারী শিশুকে নিয়ে ট্রেনের সামনে ঝাঁপ দিয়েছেন। প্রথমে গতি কম থাকায় চালক ট্রেনটি থামাতে সক্ষম হয়েছেন।

দ্রুত সেই নারী এবং শিশুকে হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে। সদর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) ফরহাদ হোসেন বলেন, গৃহবধূর মোবাইল ফোনের সূত্র ধরে তার পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়েছে। খবর পেয়ে তার স্বামীসহ পরিবারের লোকজন পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতালে আসেন।

ধারণা করা হচ্ছে, পারিবারিক কলহে স্বামীর সঙ্গে ঝগড়ার কারণে তিনি এমনটা করেছেন।

আপনার স্যোসাল মাধ্যমে শেয়ার দিন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved © 2021 teestasangbad.com
Developed BY Rafi It Solution