রবিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০২:৪০ পূর্বাহ্ন

রুপালি ন্যাশনাল লিঃ কোম্পানির বিরুদ্ধে মামলা করে মামলার বাদী হয়েও ষড়যন্ত্রমূলক মামলায় কারাভোগের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন

রুপালি ন্যাশনাল লিঃ কোম্পানির বিরুদ্ধে মামলা করে মামলার বাদী হয়েও ষড়যন্ত্রমূলক মামলায় কারাভোগের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন

 

নিজস্ব প্রতিবেদক

রুপালি ন্যাশনাল লিঃ কোম্পানির বিরুদ্ধে মামলা করে মামলার বাদী হয়েও ষড়যন্ত্রমূলক মামলায় কারাভোগের প্রতিবাদে গতকাল বুধবার ১৩/১০/২১ ইং দুপুরে নগরীর রিপোর্টার্স ইউনিটিতে সংবাদ সম্মেলন করেছে ভুক্তভোগিরা। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন মোঃ রবিন চৌধুরী রাসেল এবং শরিফা বেগম শিউলী। সংবাদ সম্মেলনে তারা জানান, বিগত (৮ জুলাই) ২০১৯ তারিখে একুশের বাণী পত্রিকায় বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে জানতে পারি, রুপালি ন্যাশনাল লিঃ ও রুপালি ইলেকট্রনিক্স লিঃ নামে একটি এনজিও প্রতিষ্ঠান রংপুরে কিছু কর্মী নিয়োগের মাধ্যমে একটি শাখা অফিস স্থাপন করবেন। এরই আলোকে উল্লেখিত ব্যক্তিগণ ১। মোঃ ছোটন মিয়া, ২। মোছাঃ মরিয়ম মৌসুমি, ৩। মোছাঃ লাইলুন নাহার ৪। মোঃ হাবিবুর রহমান ৫। রেজওয়ানা আক্তার রিজু, ৬। মোছাঃ নাসরিন বেগম, ৭। তানভীন আক্তার মুন্নী, ৮। মোঃ সেলিম মিয়াসহ আমরা ঢাকায় গিয়ে রুপালি ন্যাশনাল নামক ওই কোম্পানিটির বিষয়ে আলাপ আলোচনা সাপেক্ষে রংপুরে অফিস স্থাপন করার সিদ্ধান্ত নেই। নিয়োগ পাওয়ার পর আমরা রংপুরে একটি অফিস স্থাপন করি। যেখানে আমাদের নিজস্ব তহবিল থেকেও আসবাবপত্র ক্রয়সহ অফিস ভাড়া বাবদ জামানত প্রদান করা হয়। পরবর্তীতে কোম্পানির নির্দেশনা মতে রংপুরের বিভিন্ন পাড়া-মহল্লায় রুপালি ন্যাশনাল লিঃ এর নামে কার্যক্রম পরিচালনা করতে থাকি। আমরা সকলে মিলেই যখন জানতে পারলাম রুপালি ন্যাশনাল লিঃ আমাদের দিয়ে প্রতারণার ফাঁদ পেতেছে, তখন আমরা সম্মিলিত ভাবে সবাই মিলে রংপুর মেট্রোপলিটন কোতোয়ালী থানায় জিডি করি, যার জিডি নং- ৮৩৮ তাং ১৬/১০/২০১৯ বাদী মোঃ রবিন চৌধুরী। এবং ওইদিন রাতেই আবার ঢাকায় গিয়ে রুপালি ন্যাশনাল লিমিটেড এর নামে ১৭/১০/২০১৯ ঢাকার মতিঝিল থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করি। ওই অভিযোগের প্রেক্ষিতে মতিঝিল থানার এসআই আরাফাত ও এসআই হাসান আমাদেরকে সহযোগিতা করে। পুলিশের সহযোগিতায় আমরা রুপালী ন্যাশনাল লিঃ এর অফিসে যাই। পরে রংপুরে ফিরে ২৩/১০/২০১৯ তারিখে তাদের নামে উকিল নোটিশ প্রেরণ করি। আমাদের অজান্তে ঐদিন রাতেই ২৪/১০/২০১৯ রংপুর মেট্রোপলিটন কোতোয়ালী থানায় আমাদের বিরুদ্ধে একটি অভিযোগ দায়ের করেন। যেখানে উল্লেখিত আছে আমরা ১২ জন স্টাফ এর নিকট হতে ২ লক্ষ ২৮ হাজার টাকা গ্রহণ করি। প্রতিপক্ষ ছোটন গং আইনের চোখকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে তাদের অপকর্ম ঢাকার অপচেষ্টায় আদালতকে মিথ্যা তথ্য দিয়ে বিভ্রান্ত করেছে। যার প্রমাণ স্বরূপ আপনাদেরকে দেয়া আছে কাগজের ফটোকপি। সংবাদ সম্মেলনে পিবিআই কর্তৃক তদন্ত রিপোর্টটি পুনর্তদন্তের ব্যবস্থা করে সুষ্ঠু তদন্ত সাপেক্ষে দোষীদের
বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের জোর দাবি জানানো হয়।##

আপনার স্যোসাল মাধ্যমে শেয়ার দিন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

© All rights reserved © 2022 teestasangbad.com
Developed BY Rafi It Solution