1. jfjoy24@gmail.com : admin :
  2. wordpressdefaults@gmail.com : defaults :
পীরগঞ্জে প্রেমিকার ভয়ে পালিয়ে থাকা প্রেমিক;অবশেষে বিয়ে | তিস্তা সংবাদ
মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০২৪, ১০:২৮ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
রংপুরে ডাক্তার ও ডায়াগনস্টিক সেন্টারকে ৪ লাখ টাকা জরিমানা সাবেক প্রতিমন্ত্রী জাকিরের বিরুদ্ধে পিস্তল উঁচিয়ে প্রতিবেশীকে হুমকি, (জিডি) নথিভুক্ত পীরগাছায় উপজেলা হাসপাতাল ব্যবস্থাপনা কমিটির মাসিক সমন্বয় সভা অনুষ্ঠিত গঙ্গাচড়ায় শেখ হাসিনা সেতুর কার্পেটিংয়ে ফাটল, ভারী যানবাহনে নিষেধাজ্ঞা রংপুরে মরিচক্ষেত থেকে অজ্ঞাত যুবকের মর*দেহ উদ্ধার রংপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের আয়োজনে ঈদ ক্রিকেট ফেস্টিভ্যালের পুরুষ্কার বিতরণ ঈদে দর্শনার্থীদের পদচারণায় মুখর আলী বাবা থিম পার্ক বিনোদন কেন্দ্র বিষাক্ত সাপ রাসেলস ভাইপার আতঙ্ক, বন বিভাগের ৭ পরামর্শ দিল্লির রাষ্ট্রপতি ভবনে শেখ হাসিনাকে রাজকীয় সংবর্ধনা তিস্তায় নৌকাডুবি: দ্বিতীয় দিনের অভিযান শেষ, এক পরিবারের ৪ জনসহ এখনও নিখোঁজ ৬

পীরগঞ্জে প্রেমিকার ভয়ে পালিয়ে থাকা প্রেমিক;অবশেষে বিয়ে

প্রতিনিধি
  • আপডেট মঙ্গলবার, ২৩ নভেম্বর, ২০২১
  • ১১৭

পীরগঞ্জ (রংপুর) প্রতিনিধি :
পীরগঞ্জে বিয়ের দাবিতে ৬দিন ধরে অবস্থান নেয়া প্রেমিকা ববিতা খাতুনকে অবশেষে বিয়ে করলো প্রেমিক তরিকুল ইসলাম (২৮)। মঙ্গলবার সকালে উভয়ের পারিবারিকভাবে এ বিয়ে সম্পন্ন হয়। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার মদনখালী ইউনিয়নের জুনিদেরপাড়া (জাফরপাড়া) গ্রামে।

এলাকাবাসী ও সদ্য বিবাহিত ববিতা জানায়, প্রায় ৫ বছর ধরে জুনিদেরপাড়া গ্রামের রফিকুল ইসলামের পুত্র তরিকুল ইসলাম (২৮) এর সঙ্গে একই উপজেলার শানেরহাট ইউনিয়নের হরিরাম শাহাপুর গ্রামের দিনমজুর ইলিয়াস মিয়ার কন্যা ববিতা খাতুনের প্রেমের সম্পর্ক চলে আসছিল। তারা উভয়েই ঢাকায় গার্মেন্টস্ শ্রমিক হিসেবে কাজ করতো।

একই এলাকার সুবাদে দু’জনার পরিচয়। পরিচয় থেকে প্রেম। ঘর বাধার স্বপ্ন ও বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে তরিকুল ইসলাম প্রায়ই ওই যুবতীর সঙ্গে দৌহিক সম্পর্ক গড়াত। শুধু তাই নয়, নতুন বাড়ি নির্মাণের প্রলোভনে ওই যুবতীর কাছ থেকে দু’লক্ষ টাকাও হাতিয়ে নেয় তরিকুল। সম্প্রতি তরিকুল ওই যুবতীতে ঢাকায় রেখে বাড়িতে চলে আসে এবং তার সঙ্গে সকল প্রকার যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন করে।

এক পর্যায়ে বিয়ের দাবীতে ববিতা গত ১৭ নভেম্বর দুপুরে প্রেমিক তরিকুলের বাড়িতে হাজির হয়। প্রেমিকার উপস্থিতি টের পেয়ে প্রেমিক তরিকুল ইসলাম কৌশলে রাতের অন্ধকারে বাড়ি ছেড়ে পালিয়ে যায়। পরদিন সকালে তার মা, বাবাসহ পরিবারের লোকজন ঘরে তালা লাগিয়ে বাড়ি ছেড়ে গাঢাকা দেয়। ‘হয় বিয়ে নয়তো আত্মহত্যা  ’ এমন আল্টিমেটাম দিয়ে ববিতা খাতুন প্রেমিক তরিকুলের আপন চাচা রাঙ্গা মিয়ার বাড়িতে অবস্থান নেয়। অবশেষে উভয়ের পারিবারিকভাবে সাড়ে ৩লক্ষ টাকা দেন মোহর ধার্য করে তরিকুল- ববিতা’র বিয়ে সম্পন্ন হয়।

 

আপনার স্যোসাল মাধ্যমে শেয়ার দিন

এই বিভাগের আরো খবর
© ২০২৪ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | তিস্তা সংবাদ.কম
Theme Customization By NewsSun