বুধবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৪:৪৫ অপরাহ্ন

পুলিশের ওপর হামলা চালিয়ে হত্যা মামলার আসামিকে ছিনতাই

পুলিশের ওপর হামলা চালিয়ে হত্যা মামলার আসামিকে ছিনতাই

মুন্সীগঞ্জ প্রতিনিধি;

 

মুন্সীগঞ্জের বাংলাবাজার কালিরচর এলাকার দু’টি হত্যা মামলার আসামি মিজিকে গ্রেফতারের পর ইনস্পেক্টর (অপারেশন) হানিফসহ অভিযানকারী পুলিশের ওপর হামলা করে হ্যান্ডকাফসহ আসামিকে ছিনিয়ে নিয়েছে স্থানীয়রা। ১৫ মে শনিবার রাতে সদর থানার কালিচর বাজারের ঘাটলার সামনে এই ঘটনা ঘটে। এই ঘটনার পর পুলিশ রাতভর অভিযান চালিয়ে স্থানীয় ইউপি সদস্য বাচ্চু মিয়া ও দশ নারীসহ ১৯ জনকে গ্রেফতার করেছে। ১৬ মে রোববার সকাল পৌনে ৯টার সমায় এএসআই মাজেদ মিয়া বাদী হয়ে ৩২জন নামীয় অজ্ঞাত আরো ৩০/৪০ নামে মামলা দায়ের করে।

এ দিকে পুলিশের ওপর হামলা ও আসামি ছিনতাইয়ের ঘটনায় সদর থানায় একটি মামলা দায়ের করেছে পুলিশ। বিষয়টি নিশ্চিত করেছে সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আবু বকর ছিদ্দিক।

ওসি জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে শনিবার রাতে অভিযান চালিয়ে হত্যা মামলার আসামি মিজিকে গ্রেফতার করা হয়। এ সময় স্থানীয় লোকজন পুলিশের ওপর হামলায় চালিয়ে হ্যান্ডকাপসহ মিজিকে ছিনিয়ে নেয়। পরে ১০০ পুলিশ নিয়ে চিরুনি অভিযান চালিয়ে ১৯ জনকে গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতারকৃতরা হলো স্বপন বেপারী (৩৫), ফোরদৌস মোল্লা (৪০), শাহ আলম প্রধান (৩৫), কুদ্দুস মোল্লা (৪২), মেম্বার বাচ্চু বেপারী (৬৩), শফিকুল প্রধান (৩০), মোহাম্মদ আলী হাওয়ালাদার (৬০), রুহুল আমিন মাঝি (৩৬), লুৎফর হাওলাদার (১৯), রিনা বেগম (৪০), বিউটি বেগম (৪৫), হোসনে আরা বেগম (৩২), রুজিনা বেগম (২৫), মাহমুদা বেগম (৪০), রুনা বেগম (৪০), সালমা বেগম (৪৭), আফসুন বেগম (৪৫), আকলিমা বেগম (২৬) ও ডালিয়া বেগম (২৭)।

তিনি জানান, স্থানীয়দের হামলায় আটজন পুলিশ আহত হয়েছে। আহতদের মধ্যে ইনস্পেক্টর অপারেশন আবু হানিফ, এসআই আব্দুল আজিজ, এএসআই সঞ্জয় কুমার সহা ও এএসআই কামাল উদ্দিন, এএসআই জহিরুল ইসলাম, কনস্টেবল (৫৪৯) শামসুজ্জামান, কনস্টেবল (৫২২) আব্দল সালাম রয়েছেন।

এ দিকে গ্রেফতারদের মধ্যে রুজিনা বেগম (৩০) একজন। যার দু’টি শিশু সন্তান রয়েছে। অপর দিকে ঢাকা থেকে ঈদে বাড়িতে এসে গ্রেফতার হয়েছেন বিউটি বেগম (৫৫) ও রুনা বেগম (৪৫)। আসামি ছিনতাই বা পুলিশের ওপর হামলার সাথে তারা জড়িত নয় বলে দাবি করেছেন। নিরীহ নারীদেরকে গ্রেফতার করায় রোববার সকাল থেকে থানার সামনে কালিরচরের অনেক নারী ও শিশু জড়ো হয়েছে।

এ বিষয়ে মুন্সীগঞ্জ সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো: আবু বকর ছিদ্দিক বলেন, ইনস্পেক্টরসহ বেশ কিছু পুলিশ কর্মকর্তা ও সদস্য আহত হয়েছে। পুলিশের ওপর আক্রামণ করে হ্যান্ডকাফসহ হত্যা মামলার আসামি ছিনতাই করা হয়েছে। এ ঘটনায় ১৯ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। আদালতের মাধ্যমে তাদেরকে কারাগারে পাঠানোর প্রক্রিয়া চলছে।

বাদী এএসআই মাজেদ মিয়া জানান, বন্দর থানার একটি মামলার পলাতক আসামী সন্ত্রাসী ও ডাকাত মিস্টার মিজিকে নিজ বাড়ী থেকে গ্রেফতার করে। গ্রেফতার করে কালিরচর বাজারের সামনের ঘাটলায় আসলেই অতর্কিত হামলা করে পুলিশের উপর। ৮জন পুলিশ সদস্য আহত করে ডাকাত ও সন্ত্রাসী মিস্টার মিজিকে ছিনিয়ে নিয়ে যায়।

আপনার স্যোসাল মাধ্যমে শেয়ার দিন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

© All rights reserved © 2022 teestasangbad.com
Developed BY Rafi It Solution