রবিবার, ০৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৭:৫০ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
গঙ্গাচড়ায় দুস্থ ও অসহায় শীতার্থদের মাঝে কম্বল বিতরণ করেন.. এমপির কন্যা জুই জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় পদার্থবিজ্ঞান অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি মমিন সাধারণ সম্পাদক শোভন রংপুরে শিশু নির্যাতনের প্রতিবাদ করতে গিয়ে  মিথ্যা মামলায় কারাগারে ইউপি সদস্য জবি ছাত্রলীগের পদার্থ বিজ্ঞান বিভাগের সভাপতি রাফি সেক্রেটারি সাদেক পীরগঞ্জে বিএনপির উদ্যোগে গরিব অসহায় মানুষের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ গঙ্গাচড়ায় শীতকালীন ক্রীড়া প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ গঙ্গাচড়ায় বীর মুক্তিযোদ্ধাবৃন্দের মাঝে কম্বল বিতরণ গঙ্গাচড়ায় এনজিও ফেডারেশনের উদ্যোগে শীতার্থদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ গঙ্গাচড়ায় নবাগত ইউএনও’র সঙ্গে সাংবাদিকদের মতবিনিময় হেলপিং হ্যান্ড ফাউন্ডেশনের উদ্বোধন উপলক্ষে শীত বস্ত্র বিতরণ
রংপুরে পৈত্রিক সম্পত্তি বিক্রি করে নগদ অর্থ মসজিদ ও মাদ্রাসায় দিলেন- নারী সাংবাদিক

রংপুরে পৈত্রিক সম্পত্তি বিক্রি করে নগদ অর্থ মসজিদ ও মাদ্রাসায় দিলেন- নারী সাংবাদিক

 

পৈত্রিক সম্পত্তি বিক্রি করে মানবতার বন্ধনেসহ বিভিন্ন মসজিদ ও মাদ্রাসায় নগত অর্থ দিলেন- একজন নারী সাংবাদিক মঙ্গলবার (১৪ ডিসেম্বর) বিকাল ৩ টার দিকে রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার কার্যালয়ে এ মানবতার বন্ধনে সংগঠনে আংশিক নগদ অর্থ দেন তিনি।

এ সময় নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক নারী সাংবাদিক বলেন আমি সাংবাদিকতা করি । আমার বাবার পৈত্রিক সম্পত্তি থেকে আমার তিন ভাই মিলে আমাকে বাড়ি করার জন্য ৯ শতাংশ জায়গা দিয়েছিল। কিন্তু বাবার ভিটায় বাড়ি করলে স্বামীর সম্মান ক্ষুন্ন হবে। তাই আল্লাহর রহমতে নিজে জায়গা কিনে বাড়ি করেছি। যাতে স্বামীর গায়ে ঘরজামাই বদনামটা না লাগে।

ছোট বেলায় বাবা মারা গেছে। আমার মাকে আমি ভীষণ ভালোবাসতাম। মা ও মারা গেছে ২৮মে ২০১৯ ইং তারিখে তারপর নিয়ত করেছিলাম ভাইয়ের দেওয়া জায়গায় একটা মসজিদ স্থাপন করে দিবো। কিন্ত বেশ কিছুদিন আগে আমার অজান্তে দুই মহল্লার লোকজন একত্রিত হয়ে কমিটির মাধ্যমে একটি মসজিদ স্থাপন করে। সেজন্য স্থানীয়রা সেখানে আর মসজিদ স্থাপন করতে চায়না। কারণ দুই মহল্লা মিলে ২৫/৩০ টি বাড়ি। সেখানে একটি মসজিদে যথেষ্ট।

সেই জমি বিক্রি করে এলাকায় দুই মসজিদসহ মোট ৬টি মসজিদ মাদ্রাসা এতিমখানা ও এক দরিদ্র শিশুকে মাদ্রাসায় ভর্তি করার জন্য সম্পূর্ণ টাকা দিয়েছি। আমার কাছে মনে হয়েছে মানুষ মরনশীল। আমাদের সবাইকে একদিন এই পৃথীবির মায়া ত্যাগ করে কবরে যাইতে হবে। অর্থ সম্পদ আত্মীয় স্বজন কেউ আমাদের সাথে যাবেনা। তাই আমাদের উচিত সামর্থ্য অনুযায়ী যতটুকু সম্ভব ভালো কাজ করি।

টাকা দেওয়ার সময় উপস্থিত ছিলেন রংপুর রিপোর্টার্স ইউনিটির সভাপতি রহমতুল্লাহ অপু, সিনিয়র সহ সভাপতি আবুল হোসেন বাবলু, সাধারণ সম্পাদক শিমুল ইসলাম, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রণজিৎ দাস,দপ্তর সম্পাদক সুমন ইসলাম, সদস্য রবিন চৌধুরী রাসেল ও আবদুল্লাহ আল মামুনসহ অনেকে।

আপনার স্যোসাল মাধ্যমে শেয়ার দিন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved © 2022 teestasangbad.com
Developed BY Rafi It Solution