শুক্রবার, ০৭ অক্টোবর ২০২২, ০৬:১২ পূর্বাহ্ন

পীরগঞ্জে ক্ষমতার অপব্যবহার করায় চেয়ারম্যান অবরুদ্ধ

পীরগঞ্জে ক্ষমতার অপব্যবহার করায় চেয়ারম্যান অবরুদ্ধ

ai

 

মোস্তফা মিয়া পীরগঞ্জ (রংপুর) প্রতিনিধিঃ রংপুরের পীরগঞ্জের কুমেদপুর ইউপি চেয়ারম্যান কর্তৃক ক্ষমতার অপব্যবহার করায় বিক্ষুদ্ধ এলাকাবসী চেয়ারম্যান আমিনুল ইসলামকে ইউপি কার্যালয়ে অবরুদ্ধ করে রাখে। পরে প্রসাশনের সহায়াতায় ৫ ঘন্টা পর চেয়ারম্যান কে উদ্ধার করা হয়। এলাকাবাসী ও প্রত্যক্ষ দর্শিদের বিবরনে জানা যায়- গত ২০ ফেব্রুয়ারী অত্র ইউপি চেয়ারম্যান সকালে গ্রাম্য পুলিশকে দিয়ে বাজেশীবপুর গ্রামের মৃত খবির উদ্দিনের পুত্র আব্দুল মতিন মিয়া (৫০) কে নির্ধারিত কোন অভিযোগ ছাড়াই ইউপি পরিষদে ডেকে নেয়। এর পর মতিনকে একটি কক্ষে আটকিয়ে রাখা হয়। পরে আটককৃত ব্যাক্তির স্বজন ও শত শত প্রতিবেশীরা পরিষদে এসে চেয়ারম্যানের নিকট আটকের বিষয় জানতে চাওয়া হলে চেয়ারম্যান আগত জনতাকে টিউবয়েল চুরির কথা জানিয়ে দেন। চেয়ারম্যান এর এ মিথ্যা অপবাদে এলাকাবাসী ক্ষিপ্ত হয়ে মারমূখি হয়ে উঠে, পরে অবস্থা বেগতিক দেখে আটককৃত ব্যাক্তিকে ছেড়ে দিতে বাধ্য হয় চেয়ারম্যান। এ সংবাদ দ্রুত ছড়িয়ে পড়লে আরও কয়েক হাজার লোকের সমাগম ঘটে উক্ত ইউপি চত্তরে। চেয়ারম্যান আগত হাজার হাজার লোকের সমাগমের রোষানল থেকে বাঁচতে নিজেই তার অফিস কক্ষের ভিতরে তালাদিয়ে অবরুদ্ধ হয়ে প্রসাশনকে খবর দেন। খবর পেয়ে পীরগঞ্জ উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) খায়রুল ইসলাম, পীরগঞ্জ থানার অফিসার্স ইনচার্জ আব্দুল আউয়াল সঙ্গীয় ফোসসহ ঘটনা স্থলে এসে বিক্ষুদ্ধ জনতাকে শান্ত করে চেয়ারম্যান আমিনুল ইসলামকে উদ্ধার করে নিয়ে যান। এ ব্যাপারে আটককৃত ব্যাক্তি মতিন মিয়ার সাথে কথা হলে তিনি বলেন-মুলত আমি ইউপি নির্বাচনে চেয়ারম্যান এর বিপক্ষ পার্থীর ভোট করার কারনে আমার উপর ক্ষমতার অপব্যবহার করছে। চেয়াম্যান আমিনুল ইসলামকে এ ব্যাপারে মুঠোফোনে ফোনদিয়ে কোন মন্তব্য পাওয়া যায়নি। অপরদিকে পীরগঞ্জ উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) খায়রুল ইসলাম এর সাথে কথাহলে তিনি বলেন-এটি একটি ভুল বোঝাবুঝি আমরা সাময়িক পরিস্থিতি নিয়োন্ত্রন করেছি, বাকিটা তদন্ত কওে খো যাবে। পীরগঞ্জ থানার অফিসার্স ইনচার্জ আব্দুল আউয়াল এর সাথে কথা হলে তিনিও অনুরুপ কথা বলেন। তবে এ ঘটনায় সন্ধ্যা ৮ টা পর্যন্ত চেয়ারম্যান বা নির্যাতিত ব্যাক্তির লোকজন কেহ কোন লিখিত অভিযোগ করেনি, অভিযোগ করলে তদন্ত সাপেক্ষে সত্যতার ভিত্তিতে ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে। অপরদিকে অত্র ইউপি আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক লাবু আহমেদ বলেন- এটি চেয়ারম্যান হিসেবে কাজটি করা মোটেও ঠিক হয়নি, এটি চেয়ারম্যান অন্যায় করেছেন।

 

 

আপনার স্যোসাল মাধ্যমে শেয়ার দিন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

© All rights reserved © 2022 teestasangbad.com
Developed BY Rafi It Solution