1. jfjoy24@gmail.com : admin :
  2. wordpressdefaults@gmail.com : defaults :
রংপুর পীরগঞ্জে সরকারী কাজে বাধাঁ দেওয়ায় আওয়ামিলীগ নেতা সহ গ্রেপ্তার - ৬ | তিস্তা সংবাদ
মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০২৪, ১০:১৯ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
রংপুরে ডাক্তার ও ডায়াগনস্টিক সেন্টারকে ৪ লাখ টাকা জরিমানা সাবেক প্রতিমন্ত্রী জাকিরের বিরুদ্ধে পিস্তল উঁচিয়ে প্রতিবেশীকে হুমকি, (জিডি) নথিভুক্ত পীরগাছায় উপজেলা হাসপাতাল ব্যবস্থাপনা কমিটির মাসিক সমন্বয় সভা অনুষ্ঠিত গঙ্গাচড়ায় শেখ হাসিনা সেতুর কার্পেটিংয়ে ফাটল, ভারী যানবাহনে নিষেধাজ্ঞা রংপুরে মরিচক্ষেত থেকে অজ্ঞাত যুবকের মর*দেহ উদ্ধার রংপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের আয়োজনে ঈদ ক্রিকেট ফেস্টিভ্যালের পুরুষ্কার বিতরণ ঈদে দর্শনার্থীদের পদচারণায় মুখর আলী বাবা থিম পার্ক বিনোদন কেন্দ্র বিষাক্ত সাপ রাসেলস ভাইপার আতঙ্ক, বন বিভাগের ৭ পরামর্শ দিল্লির রাষ্ট্রপতি ভবনে শেখ হাসিনাকে রাজকীয় সংবর্ধনা তিস্তায় নৌকাডুবি: দ্বিতীয় দিনের অভিযান শেষ, এক পরিবারের ৪ জনসহ এখনও নিখোঁজ ৬

রংপুর পীরগঞ্জে সরকারী কাজে বাধাঁ দেওয়ায় আওয়ামিলীগ নেতা সহ গ্রেপ্তার – ৬

প্রতিনিধি
  • আপডেট বৃহস্পতিবার, ১২ মে, ২০২২
  • ৯৫

মোস্তফা মিয়া পীরগন্জ রংপুর প্রতিনিধি

রংপুরের পীরগঞ্জে আদালতের নির্দেশ পালন কালে পুলিশ সদস্যদের সঙ্গে স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা ও তার পরিবারের ধস্তাধস্তি এবং হাতাহাতির ঘটনা ঘটেছে। এতে নারী পুলিশসহ ৬ সদস্য আহত হয়েছেন। আসামী পক্ষে আহত হয়েছেন আরও ১২-১৫ জন। বুধবার শানেরহাট ইউনিয়নের পাহাড়পুর মৌজায় এ ঘটনা ঘটে। উচ্চ আদালতের নির্দেশে সেচ পাম্পে বিদ্যুৎ সংযোগ দিতে যাওয়া নিয়ে এ সংঘর্ষ হয়।

এ ঘটনায় শানেরহাট ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান মাস্টার, তার স্ত্রী বিজলী, মেয়ে মীম আক্তার, বোন বড় পাহাড়পুর গ্রামের মোনাজ উদ্দিনের স্ত্রী মিরা বেগম, আরেক বোন প্রথমডাঙ্গা গ্রামের লালমিয়ার স্ত্রী মমতা বেগম ও নিকটআত্মীয় ধল্লাকান্দি গ্রামের রুপিয়া বেগমকে আটক করে পুলিশ।

সরকারি কাজে বাধা দেওয়ায় মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে রাতেই তাদের কারাগারে পাঠানো হয়েছে। মামলার এজাহার সুত্রে জানাযায় ২০১১ সাল থেকে মিজানুর পাহাড়পুর মৌজায় বরেন্দ্র বহুমুখী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের একটি গভীর নলকূপ পরিচালনা করেন। কয়েক মাস আগে একই মৌজার নিজ জমিতে স্থানীয় কাজীপাড়ার রশিদ সরদার নলকূপ স্থাপনের জন্য উপজেলা সেচ কমিটির কাছে আবেদন করেন। অনুমোদনও পান। তবে অল্প দূরত্বে দুটি গভীর নলকূপ পরিচালনা সম্ভব নয় জানিয়ে মিজানুর আবেদন করলে সেই সিদ্ধান্ত স্থগিত করে সেচ কমিটি। কয়েক মাসেও বিষয়টি সুরাহা না হওয়ায় উচ্চ আদালতে যান রশিদ।

 

সম্প্রতি হাইকোর্ট ১০ কার্যদিবসের মধ্যে রশিদের সেচ পাম্পে বিদ্যুৎ সংযোগের নির্দেশ দেন। তবে নির্দেশ অনুযায়ী রংপুর পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-১ নলকূপে বিদ্যুৎ সংযোগ দিতে গিয়ে বাধার মুখে পড়েন। মঙ্গলবার পীরগঞ্জ থানা পুলিশসহ পল্লী বিদ্যুতের লোকজন সেখানে যান। তবে এ দিনও বাধা দেন মিজানের পরিবারের সদস্য ও স্বজনরা। এক পর্যায়ে তারা পুলিশ সদস্যদের সঙ্গে ধাক্কাধাক্কি ও হাতাহাতিতে জড়িয়ে পড়েন। এ সময় নারী পুলিশ সদস্য গোলেনুর ও জান্নাতুল আহত হন। পরে পুলিশ লাঠিচার্জ করলে উভয় পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ বাধে।

এতে পুলিশের নায়েক ফারুক উজ জামান, কনস্টেবল তারেক, কামরুল, আরিফুল আহত হন। পরে অতিরিক্ত পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এব্যাপারে পুলিশ বাদি হয়ে মামলা করেন মামলা নং ১৮/২২।

আপনার স্যোসাল মাধ্যমে শেয়ার দিন

এই বিভাগের আরো খবর
© ২০২৪ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | তিস্তা সংবাদ.কম
Theme Customization By NewsSun