বুধবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৩:১৮ অপরাহ্ন

আটোয়ারীতে তথ্য সংগ্রহ করতে গিয়ে(৪জন) সংবাদকর্মীর উপর হামলা

আটোয়ারীতে তথ্য সংগ্রহ করতে গিয়ে(৪জন) সংবাদকর্মীর উপর হামলা

 

পঞ্চগড় জেলা প্রতিনিধিঃ

পঞ্চগড়ের আটোয়ারীতে তথ্য সংগ্রহ করতে গিয়ে সন্ত্রাসীদের হামলায় শিকার হয়েছে সুকুমার বাবু দাস daily bangladesh post পত্রিকার পঞ্চগড় জেলা প্রতিনিধি,মোঃ সইনুল রহমান আকাশ, দৈনিক ধ্রুব বাণী পত্রিকার পঞ্চগড় জেলা প্রতিনিধি, মোছাঃ শিউলি আক্তার, মুক্তি টিভি অনলাইন এর পঞ্চগড় জেলা প্রতিনিধি, মোঃ উমর ফারুক,দৈনিক নাগরিক ভাবনা’ পত্রিকার পঞ্চগড় জেলা প্রতিনিধি। গত ২৭/০৫/২০২২ খ্রীঃ তারিখ শুক্রবার আনুমানিক সময় ৪ঃ৩০ মিনিটে এ ঘটনাটি ঘটে এবং প্রায় ০৯/১০ ঘন্টা সংবাদকর্মীদের জিম্মি করে রাখে। ঘটনার বিবরণে প্রকাশ থাকে যে আটোয়ারী উপজেলার আলোয়াখোয়া ইউনিয়নের আলোয়াখোয়া গ্রামের সরকার পাড়ার বাসিন্দা মৃঃ দ্বিজেন্দ্রনাথ সিংহ (দালানু) এর ছেলে নারদ চন্দ্র সিংহ (৩২) এর সাথে বোদা উপজেলার ময়দানদিঘী পুটিমারি গ্রামের কলিন চন্দ্র রায় এর মেয়ে প্রতিমা রানীর সাথে দীর্ঘদিনের প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। এমন অবস্থায় তারা অভিভাবকদের অবগত না করেই কোর্টে এফিডেভিট ও হিন্দু বিবাহ রেজিস্ট্রার করে ঠাকুরগাঁও জেলায় ভাড়া বাড়িতে বসবাস করত। বিবাহ বিষয়টি উভয় পরিবারের মধ্যে জানাজানি হলে, নারদ এর পরিবারের লোকজন মেনে না নেওয়ায় নারদ এর স্ত্রী প্রতিমা রানীকে সুকৌশলে প্রতিমা রানীর বাবার বাসায় নিয়ে আসে এবং নারদ বলে যে পরিবারের লোকজনকে ম্যানেজ করে অল্প কিছুদিনের মধ্যেই আনুষ্ঠানিকভাবে বিবাহ করে বিদায় নিয়ে যাবে বলে প্রতিমা রানীর পরিবারকে আসস্ত করে প্রতিমা রানী কে রেখে চলে যায়। বাবার বাসায় থাকা কালীন প্রতিমা রানী বিশ্বস্ত সূত্রে জানতে পারে যে তার বিবাহিত স্বামী বিবাহ বিদায় না নিয়ে গিয়ে গোপনে অন্যত্র বিবাহ করে ঘর সংসার করতে থাকে। প্রতিমা রানী দ্বিতীয় বিয়ে করার বিষয়টি নিশ্চিত হওয়ার জন্য ২৭/০৫/২০২২ খ্রীঃ তারিখে শুক্রবার আনুমানিক ৩ঃ৩০ স্বামী নারদের বাড়িতে গিয়ে নরদকে জিজ্ঞাসাবাদ করলে, নারদ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেন। সেই সময় প্রতিমা রানী নাদের কথায় প্রতিবাদ করলে নারদ উত্তেজিত হয়ে বাঁশের লাঠি দ্বারা প্রতিমা রানীকে এলোপাথাড়ি ভাবে মারপিট করে দুই হাতে, পায়ে, পিঠে ও শরীরের বিভিন্ন জায়গায় গুরুতর কাশশিড়া ফুলা জখম করে এবং প্রতিমা রানী কে জানে মেরে ফেলার ভয়-ভীতি ও হুমকি প্রদর্শন করতে থাকে। প্রতিমা রানীর ডাক চিৎকারে আশেপাশের লোকজন ঘটনাস্থলে আসলে কে বা কাহারা সংবাদকর্মী মোঃ সইনুল রহমান আকাশকে সংবাদ দিলে আমরা তৎক্ষণাৎ ক্যামেরা নিয়ে তথ্য সংগ্রহের জন্য মোটরসাইকেল যোগে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয় এবং প্রতিমা রানী কে মারপিট বিষয়টি ক্যামেরায় ভিডিও ধারণ করতে থাকি সেই সময় নারদ চন্দ্র সিংহ সাংবাদিকদের কে ক্যামেরায় ভিডিও ধারন করতে বাধা নিষেধ করে।নারদ চন্দ্র সিংহের সাথে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে সংবাদকর্মীদের মোবাইল ফোন গুলো কেড়ে নিয়ে আনুমানিক ০৯/১০ ঘণ্টা জিম্মি করে রাখে। নারদ উত্তেজিত হয়ে আত্মীয় স্বজনদের হাকডাক দিয়ে ঘটনাস্থলে নিয়ে আসে সংবাদকর্মীদের বেধড়ক মারপিট করে সংবাদকর্মীদের যা কিছু আছে সব কেড়ে নেওয়ার জন্য হুকুম প্রদান করেন। হুকুম পাওয়ামাত্রই, সাবুল চন্দ্র সিংহ, নিতাই চন্দ্র সিংহ, আদিত্য চন্দ্র সিংহ,শুধু চন্দ্র সিংহ, বুধু চন্দ্র সিংহ, কেশব চন্দ্র সিংহ, জগন্নাথ বর্মন এছাড়াও আরো অনেকেই বাঁশেরলাঠি ও লোহার রড দ্বারা সংবাদকর্মীদের এলোপাতাড়িভাবে মারধর করে শরীরের বিভিন্ন জায়গায় গুরুতর কাশশিরা ফুলা জখম করে। সাবুল নামে এক ব্যক্তি লোহার রড দ্বারা হত্যার উদ্দেশ্যে মাথা বরাবর সজোরে আঘাত করলে সংবাদকর্মী মোঃ সইনুল রহমান আকাশ বাম হাত দিয়ে ঠেকানোর চেষ্টা করলে উক্ত আঘাত বাম হাতের কব্জি ও কুনুইয়ের মাঝখানে লেগে ভেঙ্গে য়ায়। মহিলা সাংবাদিক মোছাঃ শিউলি আক্তারের পরনের কাপড় চোপড় ধরে টানা হেচড়া করে বিবস্ত্র করে শ্লীলতাহানি ঘটায় এবং পরনের একটি সোনার চেইন, দুই জোড়া দুল ও একটি নাকফুল চুরির অসৎ উদ্দেশ্যে ছিনিয়ে নেয়। তৎপর নারদের আত্মীয়-স্বজন সংবাদকর্মীদের জোরপূর্বক আটক করে এবং জিম্মি করে সংবাদকর্মী সুকুমার বাবু দাসের একটি হেলমেট,একটি ক্যামেরা, একটি ক্যামেরা স্ট্যান্ড ও হাতে পরিহিত একটি সোনার আংটি ও মানিব্যাগে থাকা ১২ হাজার টাকা ছিনিয়ে নেয়। সংবাদকর্মী মোঃ সইনুল রহমান আকাশের ১টি বাঁশি মাইক্রোফোন ও মানি ব্যাগে থাকা ছয় হাজার পাঁচশত টাকা ছিনিয়ে নেয়। সংবাদকর্মী মোঃ উমর ফারুকের ১টি ক্যামেরা স্ট্যান্ড ও ১টি ক্যামেরা ভাঙচুর করে। এছাড়াও নারদের আত্মীয় স্বজনেরা সংবাদকর্মীদের ক্ষতিসাধনের উদ্দেশ্যে প্রচন্ডভাবে মৃত্যুর হুমকি দিয়ে সংশ্লিষ্ট ওয়ার্ড এর মেম্বার মোঃ শাহজাহান আলী (টিএনও), একই ইউনিয়নের মেম্বার প্রদীপ চন্দ্র সিংহ ও মেম্বার মোঃ আসাদুজ্জামান রাজু এদের সহযোগিতায় ১শত টাকা মূল্যের পাঁচটি নন-জুডিশিয়াল ফাঁকা স্ট্যাম্পে ও একটি সাদা কাগজে সংবাদকর্মীদের স্বাক্ষর নিয়ে ছেড়ে দেয়। অতঃপর সংবাদকর্মীরা চিকিৎসার জন্য আটোয়ারী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি হয়। সংবাদকর্মী সুকুমার বাবু দাস এর হাসপাতালে ভর্তি রেজি নং -৩২৫১/১৫০/১, বেড নং-পুঃ১২,সংবাদকর্মী মোঃ সইনুল রহমান আকাশ এর ভর্তি রেজি নং-৩২৫০/৮৫০/১,বেড নং-১৩,সংবাদকর্মী মোছাঃ শিউলি আক্তার এর রেজি নং-৩২৫৩/৮৫৩/৪, বড নং-মঃ ০৯, প্রতিমা রানী (ভিকটিম) এর রেজি নং-৩২৪৯/৮৪৯/৩৪,বেড নং-০৭, এবং সংবাদকর্মী মোঃ উমর ফারুক প্রাথমিক চিকিৎসা নেয় যার বেজি নং-৬৩৬৪/১৪৪১/০৩।পরবর্তীতে প্রতিমা রানী (ভিকটিম) এর শারীরিক অবস্থার উন্নতি না হলে কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতালে রেফার্ড করেন যার রেজি নং-১৫৩৪১/৬৩,বেড নং-সাx১০। এই বিষয়ে পঞ্চগড়ের সংবাদকর্মীরা ও একটি সচেতনমহল তীব্র প্রতিবাদ ও নিন্দা জানিয়েছেন। এই বিষয়ে আটোয়ারী থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ সোহেল রানা বলেন সংবাদকর্মীরা এজাহার দিয়েছে, তদন্ত সাপেক্ষে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

আপনার স্যোসাল মাধ্যমে শেয়ার দিন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

© All rights reserved © 2022 teestasangbad.com
Developed BY Rafi It Solution