বুধবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৪:৪৩ অপরাহ্ন

পীরগঞ্জে মধ্যযুগীয় কায়দায় হাত-পা বেঁধে কিশোরকে নির্যাতন

পীরগঞ্জে মধ্যযুগীয় কায়দায় হাত-পা বেঁধে কিশোরকে নির্যাতন

পীরগঞ্জ (রংপুর) প্রতিনিধি :
রংপুরের পীরগঞ্জে স্বর্ণালঙ্কার চুরির অভিযোগে তুলে  রাস্তা থেকে ধরে নিয়ে গিয়ে গাছে সঙ্গে হাত-পা বেঁধে প্রকাশ্যে মধ্যযুগীয় কায়দায় নির্যাতন করা হয়েছে হোটেল শ্রমিক রুবেল (১৮) নামের এক কিশোরকে। সে উপজেলার টুকুরিয়া ইউনিয়নের গুপিনাথপুর গ্রামের হতদরিদ্র ভ্যানচালক যাদু মিয়ার পুত্র।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, গুপিনাথপুর গ্রামের মৃত গেন্দা মিয়ার পুত্র মোকলেছার রহমানের স্ত্রী রশিদা বেগমের ঘর থেকে ক’দিন পূর্বে স্বর্ণালঙ্কার চুরি যায়। এরই সূত্র ধরে বৃহস্পতিবার (১৪ জুলাই) গভীর রাতে হোটেল শ্রমিক রুবেল কর্মস্থল খালাশপীর বন্দরের এক হোটেলের কাজ সেরে বাড়ি ফেরার পথে মোকলেছার ও তার স্ত্রী রশিদা বেগম তাকে ফুসলিয়ে বাড়িতে ডেকে নিয়ে যায়। সকালে প্রকাশ্যে গাছের সঙ্গে বেঁধে মধ্যযুগীয় কায়দায় মোকলেছার, রশিদা বেগম ও তার ৩সহোদর পুত্র রওশন, নাহিদ, ইমরান লাঠি দিয়ে দফায় দফায় পিটিয়ে গুরুতর আহত করে। পরে গ্রামবাসী রুবেলকে উদ্ধার পূর্বক পীরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে।
এ ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট ইউপি চেয়ারম্যান আতাউর রহমান মন্ডল জানান, বিষয়টি লোক মারফতে জেনেছি। কিন্তু এ পর্যন্ত কেউ আমার কাছে আসেনি।
নির্যাতনের শিকার রুবেলের বাবা যাদু মিয়া আক্ষেপ করে বলেন,  (নির্যাতনকারীরা) বড়লোক, ওসমার (ওদের) বিচার কে করবি!
রুবেলের বড় বোন শিউলি আক্তার চোখের পানি মুসতে মুসতে বলে ছোট ভাইকে নির্যাতনের বিচার চাই  ওরা আমার বাপোকোএক দিন মারছে,আমি বিচার দাবি করছি
এ ব্যাপারে পীরগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ আব্দুল আউয়াল ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, নির্যাতনকারীদের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে।

আপনার স্যোসাল মাধ্যমে শেয়ার দিন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

© All rights reserved © 2022 teestasangbad.com
Developed BY Rafi It Solution