1. jfjoy24@gmail.com : admin :
  2. wordpressdefaults@gmail.com : defaults :
জাতীয় পার্টিকে এখনো রংপুরের মানুষ বুকে ধারণ করে রেখেছে -জিএম কাদের | তিস্তা সংবাদ
মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪, ১১:৪২ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :

জাতীয় পার্টিকে এখনো রংপুরের মানুষ বুকে ধারণ করে রেখেছে -জিএম কাদের

প্রতিনিধি
  • আপডেট রবিবার, ৩১ ডিসেম্বর, ২০২৩
  • ২৭

 

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ২১ রংপুর-৩ আসনের জাতীয় পার্টির মনোনীত প্রার্থী জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান ও বিরোধী দলীয় সংসদ উপনেতা গোলাম মোহাম্মদ কাদের এমপি বলেছেন, জাতীয় পার্টিকে এখনো রংপুরের মানুষ বুকে ধারণ করে রেখেছে, নানান ষড়যন্ত্রের মধ্যদিয়ে আমরা এখনো এগিয়ে যাচ্ছি।

আমরা কোন জোট কিংবা মহাজোট করিনি এবং আসন বন্টনও করা হয়নি। আমরা আমাদের রাজনীতি করছি। আমাদের রাজনীতি সরকারের পক্ষে নয় এবং সরকারের বিরুদ্ধে আন্দোলন করছে যারা তাদের বিপক্ষেও নয়। আমরা জনগণের পক্ষে রাজনীতি করি, জনগণের জন্য কাজ করতে সংসদে যেতে চাই।

গতকাল রোববার (৩১ ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় রংপুর-৩ আসন নিজ নির্বাচনী এলাকার সাহেবগঞ্জ বাজার, সিগারেট কোম্পানীর মোড় ও শালবন মিস্ত্রিপাড়া মোড়ে পৃথক পৃথক লাঙ্গল মার্কার নির্বাচনী পথসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান গোলাম মোহাম্মদ কাদের বলেন, জাতীয় পার্টিকে এখনো রংপুরের মানুষ বুকে ধারণ করে রেখেছে, নানান ষড়যন্ত্রের মধ্যদিয়ে আমার এখনো এগিয়ে যাচ্ছি। এরশাদ সাহেব যে ষড়যন্ত্রের শিকার হযেছে আমরাও এখন সেই ষড়যন্ত্রের শিকার এবং এখনো আমাদের দলকে যতভাবে ক্ষতি করা চেষ্টা করা হউক সকলেই চাচ্ছে আমরা তাদের সাথে থাকি। আমরা সাথে থাকলে তারা আবারো ক্ষমতায় যাবে। আল্লাহ রহমতে এটা হলো আপনাদের কারণে। আপনাদের সমর্থনের কারণে। ইনশাআল্লাহ জাতীয় পার্টি এখনো বাংলাদেশের রাজনীতিতে একটা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে।

তিনি আরোও বলেন, এবারের আন্দোলনের সময় সরকার একটা পক্ষ নিয়েছে, আর বিএনপিসহ আরো কিছু দল একটা পক্ষ নিয়েছে। আমরা কিন্তু কারো পক্ষ নেইনি। আমরা সরকারের সাথে এক সময় ছিলাম, আমরা নানানভাবে বঞ্চিত হয়েছি। আর বিএনপির মাধ্যমে আমরা সঠিক জিনিষ পাইনি। আর আমাদের দলকে ভাঙ্গা জন্য বিভিন্ন ভাবে ষড়যন্ত্র করে, এখনো ধব্বংস করার জন্য বিভিন্ন ষড়যন্ত্র চলছে। আজ দলের নেতৃত্ব নিয়ে যাবে, দলকে ভাঙ্গন সৃষ্টি করবে, জোড় করে গায়ের জোড়ে বিভিন্ন ভাবে তারা হুমকি দেয় আমাদেরকে। সংসদে যদি আমরা না যাই, আমাদের দল যদি নষ্ট করে দেয়া হয়। তাহলে উত্তরবঙ্গের মানুষের জন্য কোনো দল থাকবে না। এরশাদ সাহেবের যে নীতি, যার কারণে মানুষ এতো ভালবাসা দেখিয়েছে। জাতীয় পার্টিকে যারা অন্তরে ধারণ করেন তাদের জন্য রাজনীতিত্বে বক্তব্য দেয়ার কোনো লোক থাকবেনা। আমরা সরকারের সঙ্গেও নাই, সরকার বিরোধী আন্দোলনকারীদের পক্ষেও নাই। এই নির্বাচনে সরকারকে সমর্থন দেয়ার জন্য আসিনি, আমরা সংসদে যাওয়ার জন্য এসেছি, আমাদের দলকে বাচাঁনোর জন্য এসেছি।

জিএম কাদের বলেন, দেশের বিভিন্ন স্থানে নৌকা প্রার্থী ও সমর্থকরা জাতীয় পার্টির প্রার্থী ও সমর্থকদের ওপর হামলা, নির্বাচনী অফিস ভাংচুরসহ পোলিং এজেন্টদের সঙ্গে বৈঠক করে ভোট প্রভাবিত করার মতো কাজ করছে। ভয়ভীতি প্রদর্শনের কারণে জাতীয় পার্টির ভোটার প্রার্থী ও সমর্থকরা ভীত সন্ত্রন্ত হয়ে পড়ছে। অবস্থাদৃষ্টে এমন মনে হচ্ছে যে আওয়ামীলীগ ছাড়া ভোটের মাঠে আর কেউ থাকতে পারবে না।
তিনি আরো বলেন, জাতীয় পার্টি যদি শক্তিশালী হয়, তাহলে রংপুরের উন্নয়ন হবে। বঞ্চনা ও বৈষম্য থেকে রক্ষা পাবে রংপুরের মানুষ। আমি নির্বাচিত হলে রংপুরের প্রত্যাশিত উন্নয়ন উপহার দিবো।

অনুষ্ঠিত পথসভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন জাতীয় পার্টির ভাইস চেয়ারম্যান ও রংপুর মহানগর জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক এস এম ইয়াসীর, জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ও রংপুর জেলা সদস্য সচিব হাজী আব্দুর রাজ্জাক, জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যানের উপদেষ্ঠা মোঃ আলা উদ্দিন মিয়া ও জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় সাংস্কৃতিক সম্পাদক আজমল হোসেন লেবু।

এ সময় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় সদস্য ও রংপুর মহানগর সিনিয়র সহ-সভাপতি মোঃ লোকমান হোসেন, সহ-সভাপতি মোঃ জাহেদুল ইসলাম, জাতীয় যুব সংহতি রংপুর জেলার সভাপতি মোঃ হাসানুজ্জামান নাজিমসহ জাতীয় পার্টি ও তার অঙ্গ সহযোগি সংগঠন এবং স্থানীয় পর্যায়ের অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।

আপনার স্যোসাল মাধ্যমে শেয়ার দিন

এই বিভাগের আরো খবর
© ২০২৪ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | তিস্তা সংবাদ.কম
Theme Customization By NewsSun