1. jfjoy24@gmail.com : admin :
  2. wordpressdefaults@gmail.com : defaults :
রংপুরে স্ত্রী হত্যার দায়ে স্বামীর আমৃত্যু কারাদণ্ড | তিস্তা সংবাদ
সোমবার, ২২ জুলাই ২০২৪, ০৪:৩২ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে রেসিডেনসিয়াল কলেজের শিক্ষার্থী নি*হত পুলিশ–ছাত্রলীগের সঙ্গে সংঘর্ষে কোটা আন্দোলনকারী বেরোবির এক শিক্ষার্থী নিহ*ত রংপুরে জেলা যুবলীগের অবস্থান কর্মসূচি ও বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত রংপুর সদর দলিল লেখক সমিতির শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠিত রংপুরে প্রবাস বন্ধু ফোরামের ত্রি-মাসিক সভা অনুষ্ঠিত এবার জিআই পণ্য হিসেবে নিবন্ধনে সুন্দরবনের মধু রমেকে ভিন্ন গ্রুপের রক্ত দেয়া সেই ফাতেমার মৃ*ত্যু পীরগাছায় স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের পক্ষ থেকে থানার এস আই আনিছুর রহমান কে বিদায় সংবর্ধনা ইরানের নতুন প্রেসিডেন্ট সংস্কারপন্থী মাসুদ পেজেশকিয়ান সৎ বাজার এরশাদ মার্কেটের দোকানদারদের পক্ষে অবহিতকরণ ও মানববন্ধন

রংপুরে স্ত্রী হত্যার দায়ে স্বামীর আমৃত্যু কারাদণ্ড

প্রতিনিধি
  • আপডেট বৃহস্পতিবার, ২৯ ফেব্রুয়ারী, ২০২৪
  • ২৩

রংপুরের পীরগাছায় শ্বাসরোধে স্ত্রীকে হত্যার দায়ে স্বামী জসীম উদ্দিন ভুট্টুকে আমৃত্যু কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। সেই সঙ্গে হত্যাকাণ্ডে সহযোগিতা, মরদেহ গুম ও তথ্য গোপন করার অপরাধে ভুট্টুর বাবা বেলাল হোসেন, মা কুলসুম বেগম, বিপ্লব সরকার, নুর উদ্দিন ও খাজির উদ্দিনকে ৭ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড ও ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

বুধবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে রংপুরের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আদালত-২ এর বিচারক সিনিয়র জেলা ও দায়রা জজ মো. রোকনুজ্জামান এ রায় দেন।

জানা যায়, ১২ বছর আগে পার্শ্ববর্তী কিশামত ছাওলা গ্রামের বেলাল হোসেনের ছেলে জসীম উদ্দিন ওরফে ভুট্টুর সঙ্গে আয়েশা বেগম বিউটির বিয়ে হয়। বিয়ের সময় নগদ ৪০ হাজার টাকা, দেড় ভরি স্বর্ণের গয়না, একটি নতুন বাই সাইকেল ও একটি বাছুর জামাতা জসিম উদ্দিকে দেওয়া হয়। ১২ বছরের সংসারে এ দম্পতির ঘরে জন্ম নেয় দুই কন্যা জেসমিন ও জুই। এর পরেও মাঝেমধ্যে আসামি জসীম উদ্দিন আবারো যৌতুক দাবি করে আসছিল। যৌতুক দিতে অস্বীকার করলে বিউটিকে শারীরিকভাবে নির্যাতন করা হয়।
এর মধ্যে ২০১৮ সালের ৩১ মে আসামি কৌশলে তার দুই মেয়ে জেসমিন ও জুইকে নানার বাড়িতে পাঠিয়ে দেয়। পরদিন বিউটিকে বাবার বাড়ি থেকে মোটরসাইকেল নিয়ে আসার জন্য চাপ সৃষ্টি করে। এ নিয়ে কথাকাটাকাটির এক পর্যায়ে তাকে নির্যাতন করে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে জসিম।

পুরো ঘটনা ধামা চাপা দেওয়ার জন্য বিউটির মরদেহ গোপনে তাদের বাড়ির অদূরে একটি পাট খেতে পুতে রাখে। সেখান থেকে দুর্গন্ত বের হলে আশপাশের লোকজন সেখানে গিয়ে একটি মরদেহ মাটি চাপা দেওয়া অবস্থায় দেখতে পায়। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পাট ক্ষেত থেকে বিউটি বেগমের মরদেহ উদ্ধার করে।

এ ঘটনায় নিহত বিউটি বেগমের বাবা আবু বক্কর সিদ্দিক বাদি হয়ে জসিম উদ্দিনসহ ৭ জনের নামে পীরগাছা থানায় হত্যা মামলা মামলা দায়ের করেন। পুলিশ তদন্ত শেষে আসামিদের বিরুদ্ধে আদালতে চার্জসীট দাখিল করে।মামলায় ১৫ জন সাক্ষীর সাক্ষ্য ও জেরা শেষে বিজ্ঞ বিচারক বুধবার এ রায় দেন। মামলার অপর আসামি বিলকিস বেগমের বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় আদালত তাকে বেকসুর খালাস প্রদান করা হয়।

রংপুর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আদালতের সরকারি কৌঁসুলি মো. জাহাঙ্গীর হোসেন তুহিন বলেন, যৌতুক না দেওয়ায় নৃশংস হত্যাকাণ্ডটি ঘটানো হয়। আদালতের রায়ে বাদীপক্ষ সন্তুষ্টি প্রকাশ করেছেন।

অপরদিকে আসামি পক্ষের আইনজীবী আব্দুল হক প্রামাণিক জানান, তারা ন্যায্য বিচার পাননি। এ রায়ের বিরুদ্ধে উচ্চ আদালতে আপীল দায়ের করবেন।

আপনার স্যোসাল মাধ্যমে শেয়ার দিন

এই বিভাগের আরো খবর
© ২০২৪ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | তিস্তা সংবাদ.কম
Theme Customization By NewsSun