শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০১:৪০ অপরাহ্ন

গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জে ট্রেনের হুক বিঁধে শিক্ষকের মৃত্যৃ

গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জে ট্রেনের হুক বিঁধে শিক্ষকের মৃত্যৃ

 

গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জের অবসরপ্রাপ্ত এক শিক্ষক বাড়িথে কে বেরিয়ে অন্যমনস্ক হয়ে হেঁটে বেড়াচ্ছিলেন বামনডাঙ্গার জামতলী এলাকায়। এ সময় রেলগেট পার হওয়ার সময় ধীরগতির ট্রেনের সামনের লোহার হুক পেটে ঢুকে মর্মান্তিক মৃত্যু ঘটেছে তার।
সেই ট্রেন আবার লাশটি হুকে করেই তাকে টেনে নিয়ে গেছে এক কিলোমিটার দূরের বামনডাঙ্গা রেলওয়ে স্টেশন প্লাটফর্মে। ঘটনাটি বৃহস্পতিবারের।

নিহত শিক্ষক স্থানীয় মনমোহিনী উচ্চ বিদ্যালয়ের অবসরপ্রাপ্ত সহকারী প্রধান আবদুর রহমানের (৭৩) বাড়ি সুন্দরগঞ্জের বামনডাঙ্গা ইউনিয়নের দক্ষিণ সাহাবাজ গ্রামে। তার বাবার নাম মৃত তোফাজ্জল হোসেন। তিনি ২০১১ সালে অবসর নেন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, সকালে সাহাবাজ এলাকায় চা খেয়ে রেললাইনের পাশ দিয়ে হেঁটে বাড়ি ফিরছিলেন আবদুর রহমান। পরে সাহবাজ জামতলী এলাকায় রাস্তা পারাপারের সময় ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা লালমনিরহাটগামী লালমনি এক্সপ্রেস ট্রেনের সামনের হুক তার পেটে ঢুকে গেলে ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় তার।

এভাবে ওই এলাকা থেকে প্রায় এক কিলোমিটার পথ হুকে করেই মরদেহটি বামনডাঙ্গা স্টেশনে নিয়ে যায় ট্রেনটি। সেখানে ট্রেন থামার পর বিষয়টি নজরে আসে রেলওয়ের কর্তব্যরত কর্মচারী ও যাত্রীদের।

পরিবার সূত্র জানায়, কিছুদিন ধরে মানসিক সমস্যায় ছিলেন প্রবীণ এই শিক্ষক। কারো সাথে তেমন কথা বলতেন না।

বামনডাঙ্গা রেলওয়ে স্টেশন মাস্টার আমজাদ হোসেন ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, নিহত শিক্ষকের মরদেহ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

আপনার স্যোসাল মাধ্যমে শেয়ার দিন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved © 2023 teestasangbad.com
Developed BY Rafi It Solution